‘সিরাত চর্চার অভাবে দেশের সর্বত্র রাজনৈতিক অস্থিরতা বৃদ্ধি পাচ্ছে’

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ ইমতিয়াজ আলম বলেছেন, সিরাত চর্চার অভাবে দেশের সর্বত্র রাজনৈতিক অস্থিরতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। রাসুল সা.-এর সীরাতের অভাবে অনৈতিকতা, অমানবিকতা, মনুষত্বহীনতা আজ নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছে। মানুষ মানুষকে খুন, নির্মমতা, নিষ্ঠুরতা এতই বৃদ্ধি পাচ্ছে যে, আইয়ামে জাহিলিয়্যাত স্মরণ করিয়ে দেয়। তিনি বলেন, নবী আদর্শের পূর্ণ অনুসরণ ব্যতীত ব্যক্তিজীবন, সামাজিক জীবন, রাজনৈতিক, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জীবনে পরিপূর্ণ শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয়। সুতরাং রাসূল সা.-এর সিরাত চর্চা বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের মানুষের মাঝে সুন্নাহর অনুসরণ বাড়াতে হবে। সে লক্ষ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিগত তিন বছর যাবৎ জাতীয় পর্যায়ে মাসব্যাপী সিরাত প্রতিযোগিতা, ক্যাম্পেইন, পুরষ্কার বিতরণ ও জাতীয় সিরাত সম্মেলনের আয়োজন করে আসছি।

আজ ২৬ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর পুরানা পল্টনস্থ একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে জাতীয় সীরাত সম্মেলন উপলক্ষে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে উপরোক্ত কথা বলেন তিনি। গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময়ে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদের সভাপতি শহিদুল ইসলাম কবির, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা কে এম শরীয়াতুল্লাহ, প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মাকসুদুর রহমান, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব এম এইচ মোস্তফা, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতী আব্দুল আহাদ প্রমুখ।

মাওলানা ইমতিয়াজ আলম আরও বলেন, রাসুল সা.মদিনায় পৃথিবীর প্রথম লিখিত সংবিধান প্রণয়ন করেন। আজকে বিশ্বে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ চলছে। ফিলিস্তিন ও কাশ্মীরে জুলুম চলছে। বাংলাদেশেও আমাদের ওপর নানাভাবে জুলুম করা হচ্ছে। অন্যায়-অবিচার ও গর্হিত কাজকে জায়েজ করার কথা বলা হচ্ছে। এটা চরম দুঃখজনক। এসব থেকে বাঁচার জন্য রাসুল সা.-এর জীবন আদর্শ আমাদের একমাত্র উপায়।

এ সময় তিনি মাসব্যাপী জাতীয় সিরাত প্রতিযোগিতার বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন।

কর্মসূচি সমূহ : ২৭-৩১ সেপ্টেম্বর ভ্রাম্যমাণ সিরাত ক্যাম্পেইন, ০১-০৫ অক্টোবর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমূহে সিরাত ক্যাম্পেইন, ০৫-০৮ অক্টোবর মসজিদভিত্তিক সিরাত ক্যাম্পেইন, প্রবন্ধ ও কুইজ প্রতিযোগিতা, ১৩ অক্টোবর হিফজুল হাদীস ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা, ১৫-২৬ অক্টোবর দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের সাথে গ্রুপভিত্তিক মতবিনিময় এবং ২৭ অক্টোবর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয় সিরাত সম্মেলন, প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ এবং বিশ্বজয়ী হাফেজ-ক্বারীদের সংবর্ধনা প্রদান করা।

শেয়ার করুন:

সম্পর্কিত খবর