এই সরকারকে আর একদিনও ক্ষমতায় দেখতে চায় না গণতন্ত্র মঞ্চ

জনগণের পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গেছে, এই সরকারকে আর একদিনও ক্ষমতায় দেখতে চায় না গণতন্ত্র মঞ্চ বলে মন্তব্য করেছেন গণতন্ত্র মঞ্চ-র নেতারা।

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় মতিঝিল শাপলা চত্বরে গণতন্ত্র মঞ্চ-র পক্ষ হতে গণমিছিল পূর্ব এক সংক্ষিপ্ত গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক। সভা পরিচালনা করেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য আকবর খান।

সভায় বক্তব্য রাখেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহাবায়ক ও গণতন্ত্র মঞ্চের সমন্বয়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দীন মাহমুদ স্বপন, নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল্লাহ কায়সার ও রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সাংগঠনিক সমন্বয়ক ইমরান ইমন।

সভাপতির বক্তব্যে সাইফুল হক বলেন, এই সরকার লুটপাটের সিন্ডিকেট করে বাজারে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে এবং লুটপাটের মাফিয়া সিন্ডকেটের স্বার্থ রক্ষা করার জন্য আরও একবার নীল নকশার নির্বাচন করার পাঁয়তারা করছে।

জোনায়েদ সাকি বলেন, মানবাধিকার সংগঠন অধিকার-এর সভাপতি আদিলুর রহমান খান ও সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিনের সাজা প্রসঙ্গে উল্লেখ করে বলেন, এদেশে কথা বলার কোনো স্বাধীনতা নেই। বিরোধী দল ও সত্য দমনকরার জন্য বিচার বিভাগকে হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করছে।

শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার অধিকার একজন নাগরিকের সাধারণ অধিকার উল্লেখ করে বলেন, এই সরকার নাগরিকের সকল অধিকার হরণ করে বিনাভোটে ক্ষমতায় রয়েছে, এবং আবারও বিরোধী দল বিহীন নির্বাচন করার ষড়যন্ত্র করছে। জীবন দিয়ে হলেও এই ষড়যন্ত্র প্রতিহত করবো।

শহীদ উদ্দীন মাহমুদ স্বপন বলেন, জনগণের পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গেছে, গণআন্দোলন গণ অভ্যুত্থানে পরিণতির মাধ্যমে এই সরকারের পতন হবে। আগামীতে কোন ফ্যাসিবাদী মহলকে ক্ষমতা দখল করার সুযোগ দেওয়া যাবে না।

শহীদুল্লাহ কায়সার বলেন, দমন-পীড়ন করে এই সরকার ক্ষমতায় থাকতে পরবে না। গণঅভ্যুত্থানের জন্য জনগণ তৈরি হয়েছে আন্দোলন সংগ্রাম আরো বেগবান করা হবে।

ইমরান ইমন বলেন, এই সরকার ভয় দেখিয়ে ক্ষমতায় থাকতে চায়, তার জন্য আইন-কানুন, বিচার বিভাগসহ গোটা রাষ্ট্রযন্ত্রকে অন্যায়ভাবে ব্যবহার করে লুটপাট ও পাচারের সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছে। এই সরকারকে আর একদিনও ক্ষমতায় থাকতে দেয়া যাবে না।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে গণতন্ত্র মঞ্চের মিছিল মতিঝিল শাপলা চত্বর হতে হাটখোলা সড়ক হয়ে সালাউদ্দীন হাসপাতাল মোড়, টিকাটুলি গিয়ে শেষ হয়।

শেয়ার করুন:

সম্পর্কিত খবর